০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, বুধবার, ০৩:২৫:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিদ্যুৎ খাতে সরকারের লুটপাটের মাশুল দিচ্ছে জনগণ, ফখরুল ফের শীত বাড়তে পারে, জানালো আবহাওয়া অধিদপ্তর সাগরে নিম্নচাপ সৃষ্টি, তাপমাত্রা কমতে পারে ১-৩ ডিগ্রি হজে যেতে ৬ লাখ ৮৩ হাজার ১৮ টাকা নির্ধারণ করেছে সরকার ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে বাংলা ভাষায় রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভোটকেন্দ্রের ভেতর থেকে ককটেল উদ্ধার হিরো আলমকে গাড়ি উপহার দিতে চান এক শিক্ষক, তবে হিরো আলমের দাবি তিনি গড়িমসি করছেন আঙুলের ছাপ না মেলায় ভোট না দিয়েই ফিরে গেলেন বৃদ্ধা কল্পনা রানী শঙ্কার মধ্যেই বগুড়া-৪ ও ৬ আসনের উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে ৬টি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে
পর্যটন এলাকায় ভ্রমণ করার জন্য দুটি দোতলা বাস কেনা হবে
  • আপডেট করা হয়েছে : ২০২২-০৯-১৮
পর্যটন এলাকায় ভ্রমণ করার জন্য দুটি দোতলা বাস কেনা হবে

বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী বলেছেন দেশের অভ্যন্তরে পর্যটন এলাকা গুলোতে ভ্রমণ পরিচালনা করার জন্য ৬ টি দোতলা বাস কেনার পরিকল্পনা আছে। এর জন্য সব ধরনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে মন্ত্রণালয়ে।

এর আগে সোমবার সকালে গাজীপুর মহানগর সালনা এলাকার সালনা রিসোর্ট ও পিকনিক স্পট উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এমন বক্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী। প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী সংবাদমাধ্যমকে বলেন পৃথিবীতে যত শিল্পী আছে তার কোন টেশনে একমাত্র পর্যটন শিল্পে টেকসই এবং দীর্ঘদিন যাবৎ চলে আসছে। বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশ। বর্তমানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুদক্ষ দেশ পরিচালনার কারণে দেশে অর্থনৈতিক এর পাশাপাশি অন্যান্য খাতে উন্নতি করছে। অর্থনীতির ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো পর্যটন খাত। বিশ্বের অনেক দেশে জিডিপির একটি বিশাল অংশ আসে পর্যটন খাত থেকে। আমাদের দেশে বিদেশীদের কে আকৃষ্ট করার জন্য বিভিন্ন পর্যটন জায়গা রয়েছে। তাই আমাদের এই খাতে গুরুত্ব দিতে হবে।

ভ্রমণ প্রতি মন্ত্রী আরো বলেন একটি দেশের চালিকাশক্তি জিডিপির বৃদ্ধিতে সবচেয়ে বড় অবদান রাখতে পারে পর্যটন শিল্প। তিনি বলেন মরিশাস প্রতিবছর পর্যটন খাত থেকে বিশাল অংকের টাকা আয় করে সেখানে তেমন ব্যতিক্রম কিছু নেই যা বাংলাদেশে নেই। তবে সেখানকার পর্যটকরা সেখানে যথেষ্ট নিরাপত্তা পান নিরাপদে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে পারেন কিন্তু বাংলাদেশে একটু ঝুঁকি রয়েছে। এটাই মরিশাসের  প্রধান পুজি।

২০১৯ সালের ৯ কোটি ৪০ লাখ টাকা ব্যয় করে সাহারা রিসোর্ট ও পিকনিক স্পট এর নির্মাণ কাজ শুরু করে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন নির্মাণ কাজ শেষ হয় এ বছরের জুন মাসে। রিসোর্টে প্রায় ৩ দশমিক ১২একর জায়গা নিয়ে তৈরি করা হয়েছে। রিসোর্টে রয়েছে ৬০ আসন বিশিষ্ট একটি রেস্তোরাঁ, একটি কফি কর্নার, শীততাপ নিয়ন্ত্রিত একটি কনফারেন্স রুম দুটি পিকনিক ও একটি কুকিং শেড আছে।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী পুরো রিসোর্টে ঘুরে দেখেন। বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী গাজীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও প্রতিমন্ত্রী সচিব মোঃ মোকাম্মেল হোসেন।  এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন পর্যটন কর্পোরেশন অতিরিক্ত সচিব অলিউল্লাহ, সুকেশ কুমার, আবু তাহের সহ গাজীপুর জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান।

শেয়ার করুন