০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, বুধবার, ০৪:০০:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সুষ্ঠুভাবে ভোট হলে আমি দুই আসনেই বিপুল ভোটে জয়লাভ করবো, হিরো আলম বিদ্যুৎ খাতে সরকারের লুটপাটের মাশুল দিচ্ছে জনগণ, ফখরুল ফের শীত বাড়তে পারে, জানালো আবহাওয়া অধিদপ্তর সাগরে নিম্নচাপ সৃষ্টি, তাপমাত্রা কমতে পারে ১-৩ ডিগ্রি হজে যেতে ৬ লাখ ৮৩ হাজার ১৮ টাকা নির্ধারণ করেছে সরকার ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে বাংলা ভাষায় রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভোটকেন্দ্রের ভেতর থেকে ককটেল উদ্ধার হিরো আলমকে গাড়ি উপহার দিতে চান এক শিক্ষক, তবে হিরো আলমের দাবি তিনি গড়িমসি করছেন আঙুলের ছাপ না মেলায় ভোট না দিয়েই ফিরে গেলেন বৃদ্ধা কল্পনা রানী শঙ্কার মধ্যেই বগুড়া-৪ ও ৬ আসনের উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে
মহানবীর মদিনায় মিলল বিপুল সোনা ও তামার খনি
মোঃ ইনজামাম-উল আলম খান
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৪-০৯-২০২২
মহানবীর মদিনায় মিলল বিপুল সোনা ও তামার খনি

সৌদি জিওলজিক্যাল সার্ভের এক টুইটার পোস্টে বলা হয়, মদিনার আবা আল রাহা এলাকায় সোনার খনি পাওয়া গেছে।আর ওয়াদি আল ফারা এলাকায় পাওয়া গেছে তামার খনি। নতুন এসব খনি আবিষ্কারের ফলে সৌদি আরবে বিনিয়োগের গতি আরও ত্বরান্বিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ওই পোস্টে আরও বলা হয় বলা হয়, নতুন এ আবিষ্কারের মধ্য দিয়ে বিদেশি বিনিয়োগ সম্ভাবনার দুয়ার খুলবে। এক প্রতিবেদনে বলা হয়, নতুন এ আবিষ্কার দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করবে । এতে সৌদি আরবের অর্থনীতি সমৃদ্ধ হবে।

স্থানীয় প্রশাসন বলছে, নতুন এ আবিষ্কারের মধ্য দিয়ে চার হাজারের বেশি মানুষের কর্মসংস্থান হবে । এসব খনিতে ৫৩ কোটি ৩০ লাখ ডলার পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ হবে। বর্তমানে সৌদি আরবে ৫ হাজার ৩০০ জায়গায় খনিজ সম্পদ আছে।

সৌদি আরবের ভিশন ২০৩০-এর অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে খনিশিল্পকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। গত জুনে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ঘোষণা দেন যে সৌদি আরব খনি খাতে গবেষণা ও উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দেবে। এ ঘোষণার পর শিল্প ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করে, সৌদি আরব খনিশিল্পে ৩ হাজার ২০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে।

গতমাসে শিল্প ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় এক ঘোষণায় জানায়, উম্মাল-দামার খনির লাইসেন্সের জন্য ১৩ জন দরদাতাকে প্রাথমিক অনুমোদন দিয়েছে সরকার। উম্মাল-দামার সাইটটি ৪০ বর্গকিলোমিটারেরও বেশি এলাকাজুড়ে অবস্থিত এবং এতে বিপুল পরিমাণে তামা, দস্তা, সোনা ও রুপার মজুত রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। মদিনা অঞ্চলে অবস্থিত উম্মাল-দামার মাইনিং সাইটের লাইসেন্স পেতে ১৩টি সৌদি এবং বিদেশি কোম্পানি জোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

শেয়ার করুন