০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, বুধবার, ০২:২৫:২১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে বাংলা ভাষায় রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভোটকেন্দ্রের ভেতর থেকে ককটেল উদ্ধার হিরো আলমকে গাড়ি উপহার দিতে চান এক শিক্ষক, তবে হিরো আলমের দাবি তিনি গড়িমসি করছেন আঙুলের ছাপ না মেলায় ভোট না দিয়েই ফিরে গেলেন বৃদ্ধা কল্পনা রানী শঙ্কার মধ্যেই বগুড়া-৪ ও ৬ আসনের উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে ৬টি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যা, বিটিসিএল কর্মকর্তার মৃত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা বাগেরহাটের ইপিজেডের কারখানায় লাগা আগুন এখনো নিয়ন্ত্রণে আসেনি দেশে ফিরছেন সৌদি আরবে নির্যাতনের শিকার রোজিনা বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের জেরে ২ শিশুকে হত্যা: ১ জনের মৃত্যুদণ্ড, ১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
চালের দাম আর বাড়ার সম্ভাবনা নেই: খাদ্যমন্ত্রী
সাইফুল ইসলাম মুন্না
  • আপডেট করা হয়েছে : ২০২২-১১-২০
চালের দাম আর বাড়ার সম্ভাবনা নেই: খাদ্যমন্ত্রী

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন,  অন্যান্য সময়ের চেয়ে এই সময় প্রতি বছরে চালের দাম বাড়তে থাকে তবে এবার চালের দাম মিলগেট থেকে শুরু করে খুচরা পর্যায়—কোথাও বাড়েনি। আগামীতেও চালের দাম আর বাড়ার সম্ভাবনা নেই। খাদ্যসংকটেরও কোনো সম্ভাবনা নেই।

নওগাঁ শিল্প ও বণিক সমিতির ভবনে ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

সাধারণত এই সময় চালের দাম অন্যান্য বছরগুলোতে বাড়তে থাকল এবারে তেমন কোনো সম্ভাবনা নেই এর কারণ হিসেবে মন্ত্রী বলেন, সাধারণত একটা মৌসুম শেষে আরেকটা মৌসুম শুরু হলে দুই মৌসুমের মাঝে চালের দাম একটু ওঠানামা হয়। ইতিমধ্যে আমন মৌসুমের ধান কাটা ও মাড়াই শুরু হচ্ছে। এ ছাড়া ওএমএসের মাধ্যমে চাল বিক্রি চলছে। তাই চালের দাম বাড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।  সরকারি গুদামে যে খাদ্য মজুত থাকার কথা, তার দ্বিগুণ আছে। প্রায় ১৮ লাখ টন চাল সরকারি গুদামে মজুত আছে। পাশাপাশি সরকারি ও বেসরকারিভাবে আমদানি করা হচ্ছে। এর সঙ্গে ১৫ থেকে ২০ দিনের মধ্যেই যোগ হবে নতুন আমনের ফলন। সব মিলিয়ে দেশে খাদ্যসংকটের কোনো শঙ্কা নেই।

কৃষকদের ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করার বিষয়ে খাদ্যমন্ত্রী বলেন সরকার এবার প্রান্তিক কৃষকদের ন্যায্যমূল্যের কেনা শুরু করবে। সরকার লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হলো কিনা সেটা কোনো বড় কথা নয় । আমরা চাই কৃষকরা যেন তাদের পরিশ্রমের ন্যায্য মূল্য পায়।

ভোক্তাদের উজ্জ্বল বা চিকন চাল না খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেন, চকচকে চান না খেয়ে সবাইকে নন পলিশ চাল খাওয়া উচিত ।এখন থেকেই সবার এই অভ্যাস করে নেওয়া উচিত। কেননা চাল পলিশ করার ক্ষেত্রে চালের একটি অংশ বিনা কারণে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে যাতে চালের গুণগত মান নষ্ট হচ্ছে। আগের মতো মানুষ যদি নন-পালিশ চাল খাওয়া শুরু করে, তাহলে আমাদের দেশে ১৮ থেকে ২০ লাখ চাল সেভ হবে। তখন আর চাল আমদানি করার প্রয়োজন হবে না।’

এসময় অনুষ্ঠান চলাকালীন উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি হেলাল আমিন এবং অনুসৃত এলাকা নওগাঁ ৩ আসনের সংসদ সদস্য সলিমুদ্দিন এবং নওগাঁর ৬ আসনের সংসদ সদস্য হোসেনসহ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ইব্রাহিম, এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক এবং নওগাঁ শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি ইকবাল শাহরিয়ার। এসময় নওগাঁ জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা সহ আওয়ামী লীগের বিশিষ্ট নেতা কর্মীগণ এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।  

শেয়ার করুন